Wednesday, August 10, 2022

চুরি-ডাকাতি লেগেই রয়েছে, পুলিশি নিরাপত্তার দাবিতে সরব ব্যবসায়ী থেকে স্থানীয়রা

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


#অশোকনগর: এলাকায় ঘটেছে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা। এখন আতঙ্কিত গোটা এলাকা। পুলিশ ক্যাম্প সরে যেতেই আবারও বেড়েছে দুষ্কৃতীদের আনাগোনা। স্থানীয়রা দাবি জানাচ্ছেন অবিলম্বে নিরাপত্তা বাড়ানো হোক গোটা এলাকার। অশোকনগর বিধানসভা কেন্দ্রে শ্রীকৃষ্ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েত লাগোয়া নুরপুর বাজার। এই বাজারেই ঘটে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা। তারপর থেকেই আতঙ্কিত গোটা বাজার এলাকাসহ আশপাশের এলাকার মানুষজন। দু’জন সিভিক ভলেন্টিয়ারস সহ বাজারে রাত পাহারা দেওয়ার নৈশপ্রহরীদের দড়ি দিয়ে বেঁধে রেখে দুঃসাহসিক ডাকাতি হয় দুটি সোনার দোকানে।

দোকানের শাটার ভেঙে, সিন্দুক ভেঙে লুটতরাজ চালায় দুষ্কৃতীরা। লক্ষাধিক টাকা চুরির ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি পুলিশের তরফ থেকে। বাজারের ব্যবসায়ীদের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই পুনরায় এলাকায় পুলিশ ক্যাম্প বসানোর দাবি জানানো হচ্ছে। পূর্বে এই এলাকায় ছিল একটি পুলিশ ক্যাম্প, কিন্তু বর্তমানে তা তুলে নেওয়া হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তারপর থেকেই শুরু হয় দুষ্কৃতীদের উৎপাত। বেশ কয়েকবার চুরির ঘটনাও ঘটেছে নুরপুর বাজার এলাকার কয়েকটি দোকানে। তবে সিভিক পুলিশ সহ নৈশপ্রহরীদের বেঁধে রেখে ছুরির ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

আরও পড়ুন: চোখ রাঙাচ্ছে নিম্নচাপ, তুমুল ঝড়-বৃষ্টি রাজ্যের জেলায় জেলায়, লাল সতর্কতা জারি

সোনার দোকানগুলিতে সিসিটিভি ক্যামেরা থাকলেও তার সমস্ত কিছুই খুলে নিয়ে যায় দুষ্কৃতিদের দল। একটি দোকানে লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে দুষ্কৃতিদের আনাগোনার ছবি। সেই ফুটেজ দেখে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করা যথেষ্টই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। বাজার এলাকার বিভিন্ন জায়গায় বসানো হোক সিসিটিভি বাড়ানো হোক বাজারের নিরাপত্তা। যেখানে পাঁচজনকে বেঁধে রেখে এ ভাবে চুরির ঘটনা ঘটল তাতে ভবিষ্যতে আরও বড় কোনও ঘটনা ঘটতে পারে বলেই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন ব্যবসায়ীরা।

আরও পড়ুন: ২ বছর পর নবাবের শহরে মহরমের প্রস্তুতি, খোলা হল ইমামবাড়ার দরজা, প্রবেশ অবাধ

জানা গিয়েছে, প্রায় ১০-১৫ জনের দুষ্কৃতীর দল এ দিন এই চুরির ঘটনা ঘটায় নুরপুর বাজার এলাকায়। সকলের কাছেই আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা ছিল বলে জানিয়েছে বেঁধে রাখা সিভিক ভলেন্টিয়ার্সরা। বাজার কমিটির তরফ থেকে জানানো হয়, গত ১০ বছরে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি এই এলাকায়। পুলিশ ক্যাম্প সরে যেতেই আবারও ফের বারবাড়ন্ত দুষ্কৃতীদের। লক্ষাধিক টাকা চুরির ঘটনায় ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে অশোকনগর থানার পুলিশ। আশ্বাস দেওয়া হয়েছে পুলিশি নজরদারির। বাজারে নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে, স্থানীয় পঞ্চায়েতের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে এখন কী পদক্ষেপ নেয় প্রশাসন সে দিকেই তাকিয়ে নুরপুর এলাকার বাসিন্দারা।

রুদ্র নারায়ন রায়

Published by:Shubhagata Dey

First published:

Tags: Crime News, North 24 Parganas



Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img