Thursday, September 29, 2022

বুধবার হাজিরা এড়ালেই কড়া ব্যবস্থা, অনুব্রতকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল সিবিআই

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


#কলকাতা: গরু পাচার মামলার তদন্ত করতে গিয়ে বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত আগেই পেয়েছিলেন সিবিআইয়ের তদন্তকারী আধিকারিকরা। আর এই বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের শরিক যে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা, তার তথ্য প্রমাণ ইতিমধ্যেই হাতে এসেছে তদন্তকারী সংস্থার। সেক্ষেত্রে সাক্ষী হিসেবে অনুব্রত মণ্ডলকে বারবার তলব করছে সিবিআই।

গরু পাচার মামলায় সোমবার অনুব্রতকে তলব করেছিল সিবিআই৷ কিন্তু হাজিরা দেননি অনুব্রত৷ শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে সিবিআই দফতরে গরহাজির থাকছেন তিনি। যা মোটেও ভাল ভাবে নিচ্ছে না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা, যার আভাস পাওয়া গেল মঙ্গলবার নিজাম প্যালেসে হওয়া উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক থেকেই।

আরও পড়ুন: ফের ‘বেডরেস্ট’? সিবিআই তলব হতেই অনুব্রতর বাড়িতে চিকিৎসক! হাজিরা নিয়ে তুমুল জল্পনা!

 তাঁকে ফের নোটিস পাঠিয়ে বুধবার বেলা ১১ টার মধ্যে নিজাম প্যালেসে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছে সিবিআই। তিনি কি হাজিরা দেবেন নাকি আবারও অসুস্থতার কারণে হাজিরা এড়াবেন? মঙ্গলবার দিনভর এই প্রশ্নই ছিল তদন্তকারীদের মনে। সিবিআই সূত্রে খবর, এ দিন দিল্লি থেকে আসা সিবিআই- এর অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর অজয় ভাটনগরের উপস্থিতিতে গরু পাচার মামলার তদন্তকারী অফিসারেরা বৈঠক করেন। সেই বৈঠকে ছিলেন কলকাতার দুর্নীতি দমন শাখার যুগ্ম অধিকর্তাও।

সূত্রের খবর, সেই বৈঠকেই গরু পাচার মামলার বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। যেখানে অনুব্রত মণ্ডলের আয় বহির্ভূত একাধিক সম্পত্তির বিষয় তুলে ধরেন মামলার তদন্তকারী আধিকারিক। ইতিমধ্যে গরু পাচার মামলায় দ্বিতীয় সাপ্লিমেন্টারি চার্টশিট জমা দিয়েছে সিবিআই। তাতে অনুব্রত মণ্ডলের দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের সম্পত্তির যাবতীয় তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘‘দল সবটাই নজর রাখছে, দলই সিদ্ধান্ত জানাবে’’- সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে বড় বয়ান

তদন্তকারীদের মতে, অনুব্রতর প্রভাব খাটিয়ে গরু পাচারকারীদের সাহায্য করেছে এই সায়গল হোসেন। ইতিমধ্যে অনুব্রত মণ্ডলের নামে ও বেনামে থাকা সম্পত্তির খতিয়ান হাতে নিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা। এমন কি, তৃণমূল নেতার মেয়ের নামে থাকা সম্পত্তিরও হদিশ পেয়েছে সিবিআই। তাই এবার যদি হাজিরা এড়ান, তাহলে আইনি পথেই হাঁটার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে তদন্তকারী সংস্থা।

সূত্রের খবর, এ দিন বৈঠকের সময় ভিডিও কনফারেন্সে দিল্লির সিবিআই দফতরের লিগ্যাল সেলের সঙ্গে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। তাতে আদালতে গিয়ে সরাসরি অনুব্রত মণ্ডলের বিষয়টি তুলে ধরার পক্ষে পরামর্শ দিয়েছে লিগ্যাল সেল। সিবিআই- এর একটা অংশ দাবি করছে, কাউকে সাক্ষী হিসেবে বারবার তলব করার পর হাজিরা এড়ালে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করা হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে এবারও যদি অনুব্রত হাজিরা এড়ান, তাহলে ওই পথে হাঁটার জন্য আদালতে যেতে পারে সিবিআই।

Published by:Debamoy Ghosh

First published:

Tags: Anubrata Mondal, CBI



Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img