Thursday, September 29, 2022

Rajnath Singh Mongolia Visit: রাজনাথকে ঘোড়া উপহার মঙ্গোলিয়ায়, জেনে নিন চেঙ্গিস খানের বিশ্বজয়ী ঘোড়ার গল্প

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: ভারত থেকে মঙ্গোলিয়ার দুরত্ব প্রায় ৩০৬২ কিলোমিটার। রাশিয়া এবং চীনের সীমান্ত দিয়ে ঘেরা স্থলবেষ্টিত চেঙ্গিস খানের দেশ। যে চেঙ্গিস খান বিশ্বের ২২ শতাংশ শাসন করেছিলেন। বিশ্বের যে অঞ্চলের তার চোখ পড়ত তা কিছুদিনের মধ্যেইতার দখলে চলে আসত। তার ঘোড়ার খুর শত্রুদের ইন্দ্রিয় স্তব্ধ করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল। তার বাহিনী যে পথ দিয়ে গিয়েছে সেখানেই লাশের স্তূপ দেখা গিয়েছে। চেঙ্গিস খানের যোদ্ধারা ঘোড়ায় চড়ে পাড়ি দিয়েছে শত শত মাইল। সিন্ধু নদী পর্যন্ত চেঙ্গিস খানের বাহিনী কেবল ঘোড়ার সাহায্যে এসেছিল। এমনকি মঙ্গোলিয়ান ঘোড়া সম্পর্কে বলা হয় যে তাদের ছাড়া মঙ্গোলরা ডানাবিহীন পাখি। আমেরিকান মিউজিয়াম অফ ন্যাচারাল হিস্ট্রি (AMNH) জানিয়েছে, মঙ্গোলিয়া ঘোড়ার দেশ হিসাবে পরিচিত।

আসলে, মঙ্গোলীয়ার রাষ্ট্রপতি উখনাগিন খুরালসুখ, ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংকে মঙ্গোল জাতের একটি তরুণ ঘোড়া উপহার দিয়েছেন। তবে প্রতীকী উপহার হওয়ায় মঙ্গোলিয়াতেই থাকবে এই ঘোড়া। ঐতিহ্য অনুযায়ী সাত বছর বয়সী এই ঘোড়াটির নাম রাখা হয়েছে ‘তেজস’।

ঘোড়া সংস্কৃতি মঙ্গোলিয়ায় গতি পাচ্ছে। মঙ্গোলিয়ার মাটিতে যখনই কোনও বিদেশি অতিথি আসে, তারা তাকে তাদের সবচেয়ে প্রিয় জিনিস উপহার হিসেবে দেয়। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশে বর্তমানে ৩০ লাখ ঘোড়া রয়েছে। যেখানে ২০২০ সালে এই সংখ্যা ছিল ৩৩ লাখ।

টুইটারে এই উপহার দেওয়া ঘোড়ার ছবি শেয়ার করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। একটি ছবিতে তাকে ঘোড়ার মাথায় হাত বুলিয়ে দিতে দেখা গেছে, অন্য ছবিতে তাকে একটি ঘোড়ার ছবি উপহার নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। এই সময় প্রেসিডেন্ট উখনাগিন খুরালসুখকে তার সঙ্গে দেখা গিয়েছে। একই সঙ্গে অন্য একজন ব্যক্তিকে লাল পোশাক পরে দেখা গিয়েছে। এই পোশাকটির সঙ্গে চেঙ্গিস খানের সময়ে যে পোশাক কল্পনা করা হয় তার কিছুটা মিল রয়েছে। চেঙ্গিস খানের আঁকা ছবিতেও তাকে একই রকম পোশাকে দেখানো হয়েছে।

 

আরও পড়ুন: International Literacy Day 2022: এই একুশ শতকেও বিশ্বের কত মানুষ নিরক্ষর জানলে চমকে উঠবেন…

মঙ্গোলিয়ান ঘোড়াকে মোরিও বলা হয়। এরা এত শক্তিশালী যে সারা বছর ঘুরে বেড়ায়। যতই ঠান্ডা বা গরম হোক না কেন, তারা প্রত্যেকে বাইরে চরে বেড়ায়। এই ঘোড়াগুলির সঙ্গে চেঙ্গিস খানের সময়ের সম্পর্ক রয়েছে।

২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রী মোদী যখন মঙ্গোলিয়ায় গিয়েছিলেন, সেখানে তিনি একটি বাদামী ঘোড়া উপহার হিসেবে পেয়েছিলেন। দুই দেশের বন্ধুত্বে ঘোড়ার ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। যৌথ ডাকটিকিটেও ঘোড়া দেখা গিয়েছে। প্রথম প্রধানমন্ত্রী পন্ডিত নেহেরুকে মঙ্গোলিয়ার তৎকালীন প্রধান তিনটি ঘোড়া উপহার দিয়েছিলেন। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)   





Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img