Thursday, September 29, 2022

America on Taiwan: তাইওয়ান নিয়ে বিস্ফোরক বাইডেন! উত্তেজিত চিন

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: আমেরিকা এবং চিনের মধ্যে ক্রমাগত বাড়ছে উত্তেজনা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাম্প্রতিক বক্তব্যে দুই দেশের সম্পর্কের আরও অবনতি হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। বাইডেন বলেন, চিন যদি তাইওয়ানে হামলার চেষ্টা করে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র তাকে রক্ষা করবে। চিন তাইওয়ানের উপর নিজেদের অধিকার দাবি করে আসছে বহুদিন ধরে। সিবিএস নিউজে প্রচারিত একটি অনুষ্ঠানে, বাইডেনকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে চিন যদি তাইওয়ানে আক্রমণ করে, আমেরিকান বাহিনী, আমেরিকান পুরুষ এবং মহিলারা কি তাকে রক্ষা করবে? বাইডেন এর উত্তরে বলেন হ্যাঁ। সিবিএস নিউজ জানিয়েছে, সাক্ষাৎকারের পর হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, মার্কিন নীতিতে কোনও পরিবর্তন হয়নি।

সমুদ্রে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে চিন

এই নীতির কারণে, আমেরিকা বিশ্বাস করে যে তাইওয়ানের সমস্যাটি শান্তিপূর্ণভাবে সমাধান করা উচিত। তবে এই নীতিতে চিন আক্রমণ করলে মার্কিন বাহিনী পাঠানো যাবে কিনা তা নির্দিষ্ট করা হয়নি। বাইডেনের বিবৃতি এমন এক সময়ে এসেছে যখন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সরকার তাইওয়ানকে সমুদ্রে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে এবং আশেপাশের এলাকায় ফাইটার প্লেন উড়িয়ে হুমকি দেওয়ার চেষ্টা করেছে।

সম্প্রতি, মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি সহ অনেক মার্কিন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তাইওয়ান সফর করেন। এর পরেই চিন আরও ক্ষুব্ধ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এবং তাদের তাইওয়ান থেকে ফিরে যাওয়ার পরেই সামরিক অনুশীলন শুরু করে চিন।

আরও পড়ুন: Queen Elizabeth II Funeral: আড়ম্বর ও যথোচিত গাম্ভীর্যে শেষকৃত্য রানির; শ্রদ্ধা জানালেন ভারতের রাষ্ট্রপতি

বিল নিয়ে ক্ষুব্ধ চীন

সম্প্রতি, তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা সহযোগিতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত একটি বিল মার্কিন সেনেটের অনুমোদন পাওয়ার বিষয়ে চিন অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। চিনের বিদেশ মন্ত্রক আমেরিকার বিরুদ্ধে ‘এক চিন’ নীতির প্রতি প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন এবং চিনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের অভিযোগ করেছে।

‘মারাত্বক ফলাফল’

চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র মাও নিং বলেছেন, এক চিন নীতি চিন-মার্কিন সম্পর্কের রাজনৈতিক ভিত্তি। বিলটি আলোচনা, অনুমোদন অথবা স্বাক্ষরিত হলে তা চিন-মার্কিন রাজনৈতিক ভিত্তিকে টলিয়ে দেবে। যদিও তাইওয়ান প্রণালী দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক, শান্তি ও স্থিতিশীলতার দৃষ্টিকোণ থেকে গুরুতর পরিণতি ঘটাবে।

২০২২ সালের তাইওয়ান নীতি আইন তাইওয়ানের নিরাপত্তা এবং তার আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকারকে সমর্থন করে এবং এর অধীনে তাইওয়ানের পাল্টা ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য মার্কিন বিলিয়ন ডলার প্রতিরক্ষা তহবিল প্রদান করবে বলে জানা গিয়েছে।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 





Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img