Saturday, December 3, 2022

কর্মী ছাঁটাইয়ের পর আরও বড় সিদ্ধান্ত! এবার নিউ ইয়র্কের অফিস বন্ধ করার সিদ্ধান্ত ফেসবুকের

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


Facebook Office Closed: বিশ্বব্যাপী আর্থিক মন্দার এই জটিল পরিস্থিতিতে আর্থিক ক্ষতির মুখে বেশ কিছু সংস্থা কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটছে। এর মধ্যে রয়েছে দেশ-বিদেশের বেশ কিছু নামী সংস্থা। ইতিমধ্যেই ‘Meta’ থেকে বেশকিছু কর্মী ছাঁটাই করা হবে বলেই ঘোষণা করেন মার্ক জুকেরবার্গ। আর এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে ‘Meta’ তথা ফেসবুকের একটি অফিস বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেন জুকেরবার্গ। নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটানে অবস্থিত সংস্থার একটি অফিস বন্ধ করা হচ্ছে বলেই জানা গেছে।

নিউ ইয়র্কে নিজেদের কর্মী সংখ্যা কমাতে চলেছে ফেসবুকের প্রধান সংস্থা Meta। এছাড়াও, সংস্থার অফিসগুলির ঠিকানাও পরিবর্তন করা হচ্ছে। সংস্থার বিভিন্ন অফিসে ছড়িয়ে থাকা কর্মীদের এক ছাদের তলায় নিয়ে আসতে চলেছে এই সংস্থা। সম্প্রতি, Meta তথা Facebook-এর অফিস ও সেখানে কাজ করা টিমগুলিকে ঢেলে সাজানোর কথা জানিয়েছেন জুকেরবার্গ। এছাড়াও, ২০০৪ সালে স্থাপন হওয়ার পর থেকে এই প্রথমবারের জন্য কর্মী ছাঁটাইয়ের কথাও ঘোষণা করেছে এই সংস্থা।

বিশ্বব্যাপী আর্থিক মন্দার সময়, খরচ কমাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে এই সংস্থার কর্মী সংখ্যা অনেকটাই কমিয়ে ফেলা হবে বলেই জানিয়েছেন মার্ক জুকেরবার্গ। সংস্থার কর্মীদের সঙ্গে একটি সাপ্তাহিক প্রশ্ন-উত্তর পর্বে এই ঘোষণাটি করেন তিনি। সংস্থার সব কটি টিমেরই বাজেট কমানো হবে বলেই জানিয়েছেন জুকেরবার্গ। আর এই দায়িত্ব সেই সংশ্লিষ্ট টিমের উপরই প্রদান করা হবে।
IT Industry Lay off: দেশের তথ্য ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে আর্থিক মন্দার কালো মেঘ! কয়েকশো কর্মী ছেঁটে ফেলল HCL
এর মধ্যে সব থেকে বড় পদক্ষেপ হবে বর্তমান কর্মীদের মধ্যে একাংশের ছাঁটাই ও সেই জায়গায় নতুন কোনও কর্মী নিয়োগ না করা। এছাড়াও, একটি টিম থেকে অন্য টিমে কর্মীদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া বা যে সকল কর্মীরা তাঁদের কাজে সফল হচ্ছেন না, তাঁদেরকে ভালো করে ম্যানেজ করা হবে যাতে তাঁরা তাঁদের কাজে সফল হন।

Facebook Lay off: আর্থিক মন্দা ফেসবুকেও? প্রথমবারের জন্য কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটছেন জুকেরবার্গ
জুকেরবার্গের এই সিদ্ধান্ত থেকেই স্পষ্ট যে বিজ্ঞাপন থেকে Meta যে আয় করত তা অনেকটাই কমেছে। এর জন্য ক্রমবর্ধমান প্রতিযোগিতা, অর্থনৈতিক চাপ ও অ্যাপেলের অ্যাপ ট্র্যাকিং সেফগার্ডকেই দায়ী করছে সংস্থা। এছাড়াও, দ্রুত গতি TikTok-এর উপরে উঠে আসার মতো বিষয়ও রয়েছে। অন্যদিকে, মেটাভার্স ভবিষ্যৎ গড়ে তুলতেও ইতিমধ্যেই প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করেছেন মার্ক। ফলে লাভের মুখ দেখার আগে বেশ কয়েক বছর লোকসান হবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।



Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img