Sunday, February 5, 2023

বর্ধমানে মেলা দেখে ফেরার পথে দুই বোনের শ্লীলতাহানি, মারধর তাঁদের বাবা-মাকেও

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


বর্ধমান: বর্ধমানের কৃষ্ণসায়র মেলা দেখে ফেরার পথে দুই বোনের শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। মেয়েদের বাঁচাতে গিয়ে প্রহৃত হন তাদের বাবা মাও। এই ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনায় বর্ধমান শহর জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

দুই বোনের শ্লীলতাহানি এবং তাঁদের বাবা-মাকে মারধরের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ। ধৃতের নাম নাড়ু কর্মকার। বর্ধমান থানার রায়ানের দুর্গাডাঙায় তার বাড়ি। শুক্রবার সকালে বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতকে এ দিনই বর্ধমান সিজেএম আদালতে পেশ করা হয়।

আরও পড়ুন: নামেই কাপড়ের ব্য়বসা, বস্তা ভর্তি হয়ে পাচার হত সরকারি ওষুধ! বর্ধমানে ধৃত আরও ১

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দুর্গাডাঙাতেই ওই দুই বোনের বাড়ি। বাড়ি ঢোকার মুখেই তাঁদের এই অপ্রীতিকর অবস্থার মধ্যে পড়তে হয়।অভিযোগ, দুই বোনকে কুপ্রস্তাব দেয় দুই যুবক। খারাপ কথা বলা হয়। ওই দুই বোন তার প্রতিবাদ করলে তাঁদের হাত ধরে পাশের ঝোঁপে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে দুই অভিযুক্ত।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে তাঁরা বর্ধমান শহরে কৃষ্ণসায়ের থেকে মেলা দেখে বাড়ি ফিরছিলেন। দুর্গাডাঙার কাছে নাড়ু ও তার এক সঙ্গী তাঁদের পথ আটকায়। তাঁদের অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। তাঁদের হাত ধরে টানাটানি করে। রাস্তার পাশে ঝোপের মধ্যে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দিলে ওই দু’ জন দুই বোনের শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: ফেসবুক রিলস করতে মায়ের শাড়ি পরার শখ! মুর্শিদাবাদে কিশোরীর মর্মান্তিক পরিণতি

দুই বোনের চিৎকার চেঁচামেচি শুনে তাঁদের বাবা-মা সেখানে পৌঁছন। মেয়েদের উপর অত্যাচারের প্রতিবাদ করায় চুলের মুঠি ধরে মাটিতে ফেলে তাঁদের মাকে মারধর করা হয়। তা দেখে বাঁচাতে যান তাঁর স্বামী। তাঁকেও মারধর করা হয়। এরপর অভিযুক্তরা সেখান থেকে চলে যায়। যাওয়ার আগে ‘পুলিশে অভিযোগ করলে ফল ভালো হবে না’, ‘খুন করে দেওয়া হবে’ বলে তারা শাসিয়ে যায় বলে অভিযোগ।

তবে সেই হুমকি উপেক্ষা করেই ওই দুই বোন বর্ধমান থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। খোঁজ চলছে তার সঙ্গীর।

Published by:Debamoy Ghosh

First published:

Tags: Burdwan, Molestation



Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img