Sunday, February 5, 2023

১৯ কোটি ফেরাতে বলেছিলাম, দেয়নি, কুন্তলকে নিয়ে মারাত্মক অভিযোগ তাপস মণ্ডলের

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img


কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতিতে কেন গ্রেপ্তার ইডির হাতে কুন্তল ঘোষ!  ইডি সূত্রে খবর, নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় কুন্তল ঘোষকে শনিবারই আদালতে পেশ করে ইডি। তাঁকে হেফাজতের আবেদন করে ইডি। কুন্তলের গ্রেফতারের কারণ, বিভিন্ন জেলা থেকে এজেন্ট মারফত ছাত্রদের  ভর্তির টাকা নিতেন বলে অভিযোগ। এই বিষয়ে ইডির জিজ্ঞাসাবাদের সদুত্তর দিতে পারেননি কুন্তল।

কোটি কোটি টাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে। আয়ের সঙ্গে সঙ্গতি নেই  সম্পত্তি ও  ব্যাঙ্কে থাকা টাকার পরিমাণে। এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে কুন্তল উত্তর দিতে পারেননি। টাকা নেওয়ার রসিদ সহ বেশ কিছু ডকুমেন্টে সই ছিল কুন্তলের। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে কোনও উত্তর সদুতর নেই কুন্তলের কাছে। কুন্তলকে হেফাজতে নিয়ে ইডি জানতে চায় এর পিছনে আর কে কে জড়িত? কুন্তল এদিন ইডির হাতে গ্রেফতারের পর বিস্ফোরক দাবি করেন৷ বলেন, তাপস মন্ডল ৫০ লক্ষ টাকা চেয়েছিলেন। কুন্তল দেননি। তাই ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। এই বিষয়ে তাপস মণ্ডল পাল্টা বিস্ফোরক অভিযোগ করেন।

আরও পড়ুন: এবার কি তৃণমূলে ‘ঘর ওয়াপসি’? বিজেপি বিধায়ক হিরণের ভাইরাল ছবি ঘিরে জোর শোরগোল!

আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় ‘একলা চলো’ নীতি তৃণমূলের, ভোটের আগে প্রচারে মমতা-অভিষেক

তাপস মণ্ডল  ফোনে জানান, ” পঞ্চাশ লক্ষ কেন, ১৯ কোটি  ৪৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা আমার পরিচিত থেকে নিয়েছে ও, সেই টাকা ফেরতের জন্য আমি ক্রমাগত বলেছি কুন্তলকে। ও কখনো ৫০ লক্ষ,  কখন বলছেন ১ কোটি টাকা। কুন্তল যাঁদের থেকে টাকা নিয়েছে তাদেরকে ফেরতের জন্য বলেছিলাম। ৩২৫ জন ছাড়াও আরও কিছু জন রয়েছে। এর মধ্যে  চার – পাঁচ জন চাকরি পেয়েছিলেন, তাঁদের চাকরি চলে যায়, বাকিরা পায়নি। আমার আত্মীয়, পরিচিত কিছু লোক রয়েছে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে কোনও টাকা নিইনি বা চাইনি। আমার উপর চাপ রয়েছে কারণ যাঁরা টাকা দিয়েছেন তারা বলেছেন যে আমি বলেছি বলে টাকা দিয়েছিলো। যদিও আমি বলেছিলাম তাঁদেরকে টাকা দেবেন কী না আপনারা ভাবুন।

ফলে আমি কুন্তলকে বলি টাকা ফেরত দিতে। কারণ আমার পরিচিত দের থেকে টাকা কুন্তল নেওয়ায় আমার উপর একটা চাপ ছিল। বিকাশ ভবনে কিছু ইন্টারভিউ হয়েছিল, সেই কাজ তার মানে কুন্তল করে দিয়েছিলেন।যাঁরা ফেল ছিল  তাঁদের পাশ করিয়ে সার্টিফিকেট  পাইয়ে দেয়। আমি সেসব ইডি ও সিবিআইকে দিয়েছি । আমি ১৯ কোটি টাকা ফেরতের জন্য বলেছিলাম কুন্তলকে। কারণ ক্যান্ডিডেটরা কষ্ট করে টাকা দিয়েছিল। আমার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে টাকা চাইনি । যে চেক গুলোদেয় সেগুলো বাউন্স করে ছিল। আমি কোনও টাকা নিইনি। কুন্তল ঘোষ চাকরি পাইয়ে দেবে বলে টাকা নিয়েছিল বিভিন্ন জনের থেকে।”

যদিও সব মিলে বলা যায় কুন্তল ঘোষের গ্রেপ্তারি অতন্ত্য গুরুত্বপূর্ণ। কুন্তল ঘোষকে জেরা করে জানার চেষ্টা করবে ইডি এর পিছনে আর কে জড়িত।

ARPITA HAZRA

Published by:Uddalak B

First published:

Tags: ED



Source link

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news
- Advertisement -spot_img
Related news
- Advertisement -spot_img